মুর্দাকে দাফন করার পর তার জন্য দু’আ করা এবং দ’আ ইস্তিগফার ও কুরআন পাঠের জন্য তার কবরের পাশে কিছুক্ষণ বসা

মুর্দাকে দাফন করার পর তার জন্য দু’আ করা এবং ইস্তিগফার ইত্যাদি করা

৯৪৭. হযরত আবু আমর (তাঁর ডাক নাম) বা আবু আবদুল্লাহ বা আবু লাইলা উসমান ইবনে আফফান (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেনঃ মুর্দাকে দাফন করা থেকে অবসর হয়ে গেলে নবী করীম (সা) তার কবরের নিকট দাঁড়িয়ে বলতেনঃ “তোমাদের ভাইয়ের জন্য ইসতিগফার কর এবং জবাবদিহির সময় যেন সে দৃঢ়পদ থাকে সে জন্য দু’আ কর। কারণ এ মুহূর্তেই তাকে প্রশ্ন করা হবে।” (আবু দাঊদ )


৯৪৮. হযরত আমর ইবনুল আস (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি (নিজের মৃত্যুর সময় নিকটবর্তী হলে ) বলেন, আমাকে দাফন করে দেবার পর তোমরা কবরের পাশে একটি উট যবেহ করে তার গোশত বণ্টন করতে যতটুকু সময় লাগে ততটুকু সময় পর্যন্ত দাঁড়াও। এভাবে আমি তোমাদের সংসর্গ অনুভব বরব আর আমার প্রতিপালকের দূতকে কি জবাব দিতে হবে তা আমি জেনে নিতে পারবো।  (মুসলিম)

ইমাম শাফেঈ (র) বলেন, কবরের পাশে (দাঁড়িয়ে) কুরআন থেকে কিছূ পড়া হচ্ছে মুস্তাহাব। আর সবাই মিলে যদি সেখানে পুরো কুরআন খতম করে তবে তা খুবই উত্তম। (কবরের পাশে কুরআন খতম করা তো দূরের কথা, শুধু পড়ার ব্যাপারেও কোন প্রমাণ পাওয়া যায় না। আর ইমাম নববী ‘আল মাজমু’ গ্রন্থে (৫/২৯৪) বলেছেনঃ এটি হল, বাস্তবে ইমাম শাফেয়ীর সাথীদের উক্তি, তাঁর উক্তি নয়।)


 

Was this article helpful?

Related Articles

Leave A Comment?