লোক ও সময়ের বিপর্যয় এবং দ্বীনের মধ্যে ফিতনা সৃষ্টি ইত্যাদির ভয়ের কারণে নির্জনতা অবলম্বন করার বর্ণনা

মানুষ বা যুগ বিনষ্ট হওয়ার সময়, কিংবা দ্বীনের ব্যাপারে ফিতনায় পড়ে যাওয়ার অথবা হারাম ও সন্দেহযুক্ত জিনিসসমূহে পতিত হওয়ার ভয়ে একাকী জীবন যাপন করা অনেক উত্তম

[Note: এ অধ্যায়ের কুরআনের আয়াত গুলো পরে আপডেট করা হবে]

 

৫৯৭. সা’দ ইবনে আবু ওয়াক্কাস (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ (সা) কে বলতে শুনেছিঃ আল্লাহ মুত্তাকী, প্রশস্ত অন্তরের অধিকারী ও প্রচারবিমুখ৭৫ বান্দাকে ভালোবাসেন। (মুসলিম)

*৭৪. এখানে প্রচারবিমুখতার অর্থ হচ্ছে নিজের নেকী ও সৎ কর্মগুলোকে লোকসমাজ থেকে লুকিয়ে রাখা। নিজেকে জাহির করে না বেড়ানো।


৫৯৮. আবু সাঈদ খুদরী (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, এক ব্যক্তি রাসূলুল্লাহ (সা) কে জিজ্ঞেস করলঃ কোন্ লোক সবচে’ ভালো, হে আল্লাহর রাসূল? তিনি বলেনঃ ঐ সংগ্রামী মু’মিন যে তার মাল ও জান দ্বারা আল্লাহর পথে জিহাদ করে। লোকটি বলল, তারপর কে? তিনি বলেনঃ তারপর ঐ লোক যে কোন গিরিসংকটে নির্জনে (বসে) তার প্রতিপালকের ইবাদতে নিমগ্ন থাকে। অন্য এক রিওয়ায়াতে রয়েছেঃ যে তাকওয়ার নীতি অবলম্বন করে এবং লোকদের অনিষ্ঠ করা থেকে বিরত থাকে।৭৬ (বুখারী, মুসলিম)

*৭৬. অর্থাৎ আল্লাহর দীনের প্রতিষ্ঠার জন্য ধনপ্রাণ দিয়ে জিহাদ মু’মিনকে সর্বশ্রেষ্ঠ মর্যাদায় উন্নীত করে। তবে কোথাও যদি এর সুযোগ না থাকে তাহলে সে ক্ষেত্রে নীরবেই বন্দেগী করে সব ব্যাপারে আল্লাহর হুকুম পরিপুর্ণরূপে মেনে তাকওয়ার উচ্চ পর্যায়ে পৌঁছে যাওয়াই মু’মিনের কর্তব্য।


৫৯৯. আবু সাঈদ খুদরী (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা) বলেছেনঃ অদূর ভবিষ্যতে মুসলমানদের উৎকৃষ্ট মাল হবে মেষ-বকরী, যেগুলোকে নিয়ে সে পাহাড়ের চূড়ায় বা বৃষ্টি বহুল এলাকায় চলে যাবে বিপর্যয় থেকে তার দ্বীনকে রক্ষা করার জন্য।  (বুখারী)


৬০০. আবু হুরাইরা (রা) থেকে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ (সা) বলেছেনঃ আল্লাহ এমন কোন নবী পাঠাননি যিনি ছাগল চরাননি। সাহাবায়ে কিরাম (রা) বললেন, আপনিও কি? তিনি বলেনঃ হ্যাঁ, আমিও কয়েক কীরাতের বিনিময়ে মক্কাবাসীদের ছাগল চরিয়েছি। (বুখারী)


৬০১. আবু হুরাইরা (রা) থেকে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ (সা) বলেনঃ লোকদের মধ্যে উৎকৃষ্ট জিন্দেগীর অধিকারী সেই ব্যক্তি যে আল্লাহর পথে ঘোড়ার লাগাম ধারণ করে তার পিঠে চড়ে অভিযানরত থাকে। যেখানেই সে শত্রুর আক্রমণ ধ্বনি বা ভীতিপ্রদ আওয়ায শুনতে পায়, সেদিকে সে বিদ্যুৎ গতিতে চলে যায় এবং রণক্ষেত্রে শাহাদাত লাভ বা মৃত্যুর আকাঙ্ক্ষারত থাকে। অথবা এমন লোকের জিন্দেগী (উৎকৃষ্ট), যে গুটিকয়েক ছাগল নিয়ে পর্বতমালার কোন একটির চূড়ায় অথবা এ উপত্যকাগুলোর কোন এক উপত্যকায় অবস্থান করে, নামায কায়েম করে, যাকাত আদায় করে, আমৃত্যু তার প্রতিপালকের ইবাদাতে নিমগ্ন থাকে এবং মানুষের সাথে সদাচার ছাড়া অন্য কিছুকে প্রশয় দেয় না।   (মুসলিম)


 

Was this article helpful?

Related Articles

Leave A Comment?