শুভ বা অশুভ হওয়ার উপর বিশ্বাস স্থাপন করা নিষেধ

কোন কিছু দেখে শুভাশুভ নির্ণয় করা নিষেধ

পূর্বের পরিচ্ছেদে বর্ণিত হাদীসসমূহ এই পরিচ্ছেদের জন্যেও প্রযোজ্য।

১৬৭৬. হযরত আনাস (রা) থেকে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ (স) ইরশাদ করেছেন, ছোঁয়াচে এবং কু-লক্ষণ বলতে কিছুই নেই। তবে আমি ‘ফাল’ পছন্দ করি। লোকজন বলল, ফাল কি? তিনি বললেন, উত্তম কথা। (বুখারী ও মুসলিম)


১৬৭৭. হযরত আবদুল্লাহ ইবনে উমর (রা) থেকে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ (স) ইরশাদ করেছেন, ছোঁয়াছে ও কুলক্ষণ বলে কিছুই নেই। কোন কিছুর মধ্যে কু-লক্ষণ থাকলে, তা বাড়ি, নারী ও ঘোড়ার মধ্যে থাকত। (বুখরী ও মুসলিম)


১৬৭৮. হযরত বুরাইদা (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেছেন, নবী করীম (স) কোন কিছুই অশুভ বা অলক্ষণে বলে মনে করতেন না। ( আবু দাউদ )


১৬৭৯. হযরত উরওয়াহ ইবনে আমের (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (স) -এর সামনে অশুভ বা কুলক্ষণ সম্পর্কে আলোচনা হচ্ছিল। তিনি বললেন এর মধ্যে উত্তম হল ‘ফাল’। কিন্তু অশুভ বলে কোন কিছু মুসলমানকে তার কাজ হতে বিরত রাখতে পারে না। তোমাদের কেউ মন্দ কিছু দেখলে যেন বলে, হে আল্লাহ! তুমি ছাড়া কেই কল্যাণ ও মঙ্গল বিধান করতে পারে না। আর তুমি মন্দ ও ক্ষতি দূর করতে পারে না। অবস্থার বদল করা বা কল্যাণ ও অকল্যাণ বিধান করার শক্তি কেবল তোমারই রয়েছে। ( আবু দাউদ )


 

Was this article helpful?

Related Articles

Leave A Comment?