ফযরের সুন্নাতের পর ডান কাতে শুয়ে থাকা মুস্তাহাব এবং রাতে তাহাজ্জুদ নামায কায়েম করুক বা না করুক এতে উৎসাহ প্রদান করা

১১১১. হযরত আয়েশা (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেনঃ নবী করীম (সা) ফজরের দু’ রাকা’আত সুন্নাত পড়ার পর ডান কাতে শুতেন। (বুখারী)


১১১২. হযরত আয়েশা (রা) থেকে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ (সা) এশার নামায শেষ করার পর থেকে ফজরের নামায পর্যন্ত এগার রাকা’আত নামায পড়তেন। এর প্রত্যেক দু’ রাকা’আতের পরে সালাম ফিরাতেন এবং এক রাকা’আত মিলিয়ে বিতর পড়তেন। তারপর যখন মুয়াযযিন ফজরের আযান দেয়ার পর নীরব হয়ে যেত ও ফজরের উদয় হত এবং মুয়াযযিন (নামাযের খবর দেবার জন্য) আসতেন, তখন তিনি দাঁড়িয়ে দু’ রাকা’আত সংক্ষিপ্ত (সুন্নাত) পড়ে নিতেন। তারপর ডান কাতে শুয়ে পড়তেন। নামাযের ইকামতের সময় হয়ে গেছে একথা জানানোর জন্য যখন মুয়াযযিন আসতেন তখন পর্যন্ত তিনি শুয়ে থাকতেন।  (মুসলিম)


১১১৩. হযরত আবু হুরাইরা (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা) বলেছেনঃ তোমাদের কারোর যখন ফজরের দু’ রাকা’আতে সুন্নাত পড়া হয়ে যায়, তখন যেন সে ডান কাতে একটু শুয়ে পড়ে। (আবু দাঊদ ও তিরমিযী)


 

Was this article helpful?

Related Articles

Leave A Comment?