পুণ্যবান ব্যক্তি, দুর্বল ও মিস্‌কিনদের কষ্ট দেয়ার বিরুদ্ধে ভীতি প্রদর্শনের বিবরণ

সৎ লোক, দুর্বল  সর্বহারাদের কষ্ট দেয়ার বিরুদ্ধে হুশিয়ারী

মহান আল্লাহ বলেনঃ

যারা ঈমানদার নর-নারীকে এমন কাজের জন্য কষ্ট দেয়, যা তারা করেনি, তারা মিথ্যা অপবাদ ও সুস্পষ্ট পাপের বোঝা বহন করে। (সূরা আহযাবঃ ৫৮)

আল্লাহ আরো বলেনঃ

‘কাজেই (হে নবী!) আপনি ইয়াতীমদের প্রতি কঠোর হবেন না এবং প্রার্থীকে (ভিক্ষুককে) ভর্ৎসনা করবেন না।’ (সূরা ওয়াদ দোহাঃ ৯-১০)

 

এ পর্যায়ে বিপুল সংখ্যক হাদীস বর্ণিত রয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে পূর্ব অনুচ্ছেদে হযরত আবু হুরাইরা (রা) বর্ণিত একটি হাদীস। তাতে বলা হয়েছেঃ ‘যে ব্যক্তি আমার বন্ধুর সাথে শত্রুতা করে, আমি তার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করি।’ এই পর্যায়ে হযরত সা’দ ইবনে আবু ওয়াক্কাস বর্ণিত একটি হাদীস ‘মুলতাফাতিল ইয়াতীম’ অনুচ্ছেদে উল্লেখ করা হয়েছে। তাতে রাসূলে আকরাম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ ‘হে আবু বকর! তুমি যদি তাদের (ইয়াতীমদের) অসন্তুষ্ট করো, তাহলে (তার অর্থ দাঁড়াবে) তুমি তোমার প্রভুকে অসন্তুষ্ট করলে।’

৩৮৯. হযরত জুন্দুব ইবনে আবদুল্লাহ (রা) বর্ণনা করেন, রাসূলে আকরাম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ যে ব্যক্তি ফজরের নামাজ পড়ল সে আল্লাহর দায়িত্বে এসে গেল। এরপর আল্লাহ যেন তার দায়িত্বের ব্যাপারে তোমাদের কোন কিছুর (খারাপ ব্যবহারের) জন্য দাবি না করেন। কেননা তিনি যখন কাউকে তার দায়িত্বের ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন এবং তাকে এর বিপরীত কাজে লিপ্ত পাবেন, তখন তাকে উপুড় করে জাহান্নামের আগুনে নিক্ষেপ করবেন। (মুসলিম)


 

Was this article helpful?

Related Articles

Leave A Comment?