কোন ব্যক্তি কোন কাজের শপথ করল। এরপর এর চেয়েও উত্তম কাজ করার অবকাশ সৃষ্টি হল। এরূপ ক্ষেত্রে অপেক্ষাকৃত উত্তম কাজটিকে অগ্রাধিকার দিতে হবে এবং পরে শপথ ভঙ্গের কাফ্‌ফারা আদায় করলেই চলবে

১৭১৭. হযরত আবদুর রহমান ইবনে সামুরা (রা) থেকে তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (স) আমাকে বললেন, যতি তুমি কোন বিষয় শপথ করার পর তার চেয়ে উত্তম বিষয় দেখতে পাও তবে উত্তম কাজটিই করবে এবং তোমার শপথ ভঙ্গের কাফফারা আদায় করবে। (বুখারী ও মুসলিম)


১৭১৮. হযরত আবু হোরায়রা থেকে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ (স) বললেন, যে ব্যক্তি কোন বিষয় শপথ করল এবং পরে এর চেয়েও উত্তম কিছু করার অবকাশ দেখতে পেল। এরূপ ক্ষেত্রে সে কসম ভংগ করে তার কাফফারা আদায় করবে এবং অপেক্ষাকৃত উত্তম কাজটি করবে। (মুসলিম)


১৭১৯. হযরত আবু মুসা (রা) থেকে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ (স) বলেছেন, আল্লাহর কসম! আল্লাহ চাহে তো আমি এমন কোন শপথ করব না যে শপথ করার পর পরে অপেক্ষাকৃত ভাল কাজের সুযোগ দেখি; তবে আমার শপথ ভঙ্গ করে তার কাফফারা আদায় করব এবং অপেক্ষাকৃত উত্তম কাজটি করব। ( বুখারী ও মুসলিম )


১৭২০. হযরত আবু হোরায়রা (রা) থেকে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ (স) বললেন, “যদি তোমাদের কেউ শপথ করে নিজের পরিবারের প্রতি বিরূপ মনোভাবাপন্ন থাকে এবং সে শপথ করে কাফফারা আদায় না করে তবে সে আল্লাহর কাছে তার প্রতি ফরয কাফফারা আদায় না করার চেয়েও বেশি গোনাহগার হবে।” (বুখারী ও মুসলিম)


 

Was this article helpful?

Related Articles

Leave A Comment?