অর্ধ শাবানের পর হতে রমযানের পূর্ব পর্যন্ত রোযা পালন করার উপর নিষেধাজ্ঞা, তবে যার পূর্বের সঙ্গে মিলাবার অভ্যাস হয়ে গেছে অথবা যে ব্যক্তি সোমবার ও বৃহস্পতিবার রোযা পালন করতে অভ্যস্ত সে ঐ দিনসমূহে রোযা পালন করতে পারবে

১২২৫. আবু হুরাইরা (রা) নবী করীম (সা) থেকে বর্ণনা করেন যে, তিনি বলেছেনঃ তোমাদের কেউ যেন রমযানের একদিন বা দু’দিন আগে রোযা না রাখে। তবে যে ব্যক্তি ঐ দিনগুলোর রোযা রাখার অভ্যাস হয়ে গেছে সে ঐ দিনগুলোয় রোযা রাখতে পারবে। (বুখারী ও মুসলিম)


১২২৬. হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেনঃ রাসূলুল্লাহ (সা) বলেছেনঃ রমযানের আগেই রোযা রেখো না। চাঁদ দেখে রোযা রাখ এবং চাঁদ দেখে রোযা ছাড়। যদি তোমাদের ও চাঁদের মাঝখানে মেঘের আড়াল হয়ে যায়, তবে (শা’বান মাস) ৩০ দিন পূর্ণ কর। (তিরমিযী) ইমাম তিরমিযী বলেছেন, হাদীসটি হাসান ও সহীহ।


১২২৭. আবু হুরাইরা (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা) বলেছেনঃ যখন শাবান মাসের অর্ধেক বাকি থাকে তখন আর রোযা রেখো না। (তিরমিযী) ইমাম তিরমিযী বলেছেন, হাদীসটি হাসান ও সহীহ।


১২২৮. আবূ ইয়াকযান আম্মার ইবনে ইয়াসির (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেনঃ যে ব্যক্তি সন্দেহের দিন (অর্থাৎ মেঘের কারণে চাঁদ না দেখে যাওয়ার দিন রোযা রাখা সন্দেহযুক্ত হয় সেদিন) রোযা রাখে, সে অবশ্যই আবুল কাসেম মুহাম্মাদ (সা)-এর নাফরমানী করে। (আবু দাঊদ ও তিরমিযী) ইমাম তিরমিযী বলেছেন, হাদীসটি হাসান ও সহীহ।


 

Was this article helpful?

Related Articles

Leave A Comment?